খুব দ্রুত মেদমুক্ত শরীর পেতে মেনে চলুন এই জাদুকরী টিপস

সুন্দর স্বাস্থ্যবান শরীর সবারই কাম্য। স্বাস্থ্যবান বলতে মোটা বা চর্বিবহুল শরীর নয়। স্বাস্থ্যবান বলতে বোঝায় সুস্থ, সবল ও নিরোগ শরীর। মেদবহুল শরীর শুধু দেহেরে সৌন্দর্যই নষ্ট করে না বরং স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি বাড়ায়। দেহকে সতেজ কর্মক্ষম এবং একই সঙ্গে দৈনন্দিন প্রাণচাঞ্চল্য ধরে রাখতে চর্বিমুক্ত স্লিম স্বাস্থ্য খুবই জরুরী। চর্বিমুক্ত স্লিম স্বাস্থ্য পেতে কি করবেন, তা নিয়েই আজকে কথা বলবো। আপনাদের সাথে আজ এমন কিছু টিপস শেয়ার করবো যেগুলো মেনে চললে আপনি পাবেন মেদমুক্ত শরীর এবং হবেন সৌন্দর্যের অধিকারী।

জগিং কিংবা দৌড়ানো সার্বিকভাবে দেহ থেকে বাড়তি চর্বি ঝরাতে সাহায্য করে। মেদমুক্ত শরীরর পেতে নানা ধরনের ব্যায়াম রয়েছে। সাইকেল চালানো, সিঁড়ি বেয়ে উঠা, হাঁটা বা অন্যান্য ব্যায়াম, কোমর, নিতম্ব এবং উরুদেশের অতিরিক্ত মেদ সহজেই ঝরাতে সাহায্য করে। এক ঘন্টা হাঁটার ফলে যে পরিমাণ ফ্যাট বা চর্বি ক্ষয় হয় ওই একই পরিমাণ চর্বি ক্ষয় হয় মাত্র বিশ মিনিট দৌড়ানোর ফলে।

যাদের উরু এবং কোমর চর্বিবহুল তাদের জন্য অবশ্য বেশিক্ষণ দৌড়ানো বা জগিং কষ্টকর। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা কিছুক্ষণ হাঁটা এবং পরে দৌড়ানোর পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

সপ্তাহে নিত থেকে পাঁচদিন বিশ থেকে ত্রিশ মিনিট ধরে অ্যারোবিক ব্যায়াম অতিরিক্ত চর্বি ঝরাবার পাশাপাশি দেহের কার্ডিও ভাস্কুলার সিস্টেমকে মজবুক করে গড়ে তোলে। বায়োমেডিক্যাল সায়েন্সের প্রফেসর এবং শরীরচর্চা বিশেষজ্ঞদের মতে, দেহযন্ত্রকে হঠাৎ করে চমকে দেওয়া স্বাস্থ্যসম্মত নয়। ব্যায়ামের জন্য মৃদু বা ধীরগতি থেকে আস্তে আস্তে ব্যায়ামের গতি ও পরিমাণ বৃদ্ধি করা ভালো। শরীরে উপর অহেতুক চাপ সৃষ্টি করে অথবা শরীরকে অযথা ক্লান্ত করে এমন ব্যায়াম পরিহার করাই শ্রেয়। যেকোনো শরীরচর্চা কিংবা ব্যায়ামের পর দেহকে এক ঘন্টার বিশ্রামের সুযোগ দেওয়া দরকার। এছাড়া যেকোনো ব্যায়ামের শুরুতে চিকিৎসক কিংবা শরীরচর্চা বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়া ভালো।

এ ছাড়া ব্যায়ামের পাশাপাশি উপযুক্ত ডায়েট বা খাদ্য তালিকা গ্রহণ, চর্বিযুক্ত খাবার পরিহার, বেশি করে শাক-সবজি, ফলমূল, শস্যদানা এবং আঁশসমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ আপনার শরীরকে চর্বিমুক্ত, সুস্থ্য এবং কর্মক্ষম রাখতে সাহায্য করবে। যারা মেদমুক্ত শরীরর পেতে চান তাদেরকে কিন্তু অবশ্যই খাবারের প্রতি সচেতন থাকতে হবে।

প্রতিদিন নিয়ম করে অন্তত একটি করে যেকোনো মৌসুমি ফল খাবেন। আপনার পছন্দের ফলটি নিয়মিত খাওয়ার চেষ্টা করুন।

সুস্থ ও চর্বিমুক্ত শরীর কে না চায়। আপনিও পেতে পারেন এমন শরীর। প্রয়োজন শুধু একটু সদিচ্ছা, হালকা কিছু ব্যায়াম ও জীবন-যাপনের রীতি বদলানো। তো অপেক্ষা কিসের? আজ থেকেই শুরু করে দিন। অল্প কিছু দিনের মধ্যেই নিজের মধ্যে টের পাবেন এর জাদুকরী প্রভাব। আর মনে রাখবেন, যে কোন কাজেই সফলতা পেতে হলে কাজের সাথে লেগে থাকতে হবে। নিয়ম গুলো প্রতিদিন মেনে চলার চেষ্টা করুন। অবশ্যই খুব দ্রুত এর ফলাফল লক্ষ্য করবেন।

আশা করছি আজকের পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে। মেদমুক্ত শরীর পেতে আপনাদের নিজেদের কোন টিপস জানা থাকলে অবশ্যই আমাদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আজকের এই পোস্ট সম্পর্কে আপনাদের যে কোন মতামত কিংবা জিজ্ঞাসা থাকলে আমাদেরকে কমেন্ট এর মাধ্যমে জানাতে পারেন।

Comments

comments

Share This Post

Post Comment